ভারতের কলকাতায় একটি প্লটে নির্মাণ কাজ চলার সময় সেখানে প্লাস্টিকের ব্যাগে খুঁজে পাওয়া গেছে ১৪ শিশুর কঙ্কাল এবং দেহাবশেষ।স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, রোববার যখন কলকাতার হরিদেবপুর এলাকায় একটি খালি প্লটে খনন কাজ চলছিল, তখন সেখানে এই ১৪ শিশুর দেহাবশেষ পাওয়া যায়।হিন্দুস্থান টাইমসের খবর অনুযায়ী, ভারতের একটি রিয়েল এস্টেট কোম্পানি সম্প্রতি এই জমি কিনে নেয়।কীভাবে এই ১৪ শিশুর দেহাবশেষ সেখানে এলো তা পরিস্কার নয়।
কলকাতার মেয়র সোভন চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, দুটি ব্যাগে ১৪টি শিশুর দেহাবশেষ খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিটি শিশুর দেহ মোড়ানো ছিল প্লাস্টিকের ব্যাগে। সেগুলি রাসায়নিকের ভেতর চোবানো ছিল।তিনি জানিয়েছেন, পুরো এলাকায় আরও তল্লাশি চালানো হচ্ছে। আশে-পাশের জলাশয়গুলোতেও তল্লাশি চলছে।ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআই একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে বলছে, কোন গর্ভপাত চক্র হয়ত এর পেছনে আছে বলে তারা সন্দেহ করছে।
পুলিশের ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘এসব শিশুর দেহাবশেষ কোত্থেকে এসেছে, তার কোনো সূত্র আমরা পাচ্ছি না। তবে অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে কেউ হয়ত এই পতিত জমিতে শিশুদের দেহ ফেলে গেছে।’পুলিশ জানিয়েছে, তারা পোস্টমর্টেম করে এ রহস্য উন্মোচনের চেষ্টা করবে। আশেপাশের এলাকার সিসিটিভি ফুটেজও পরীক্ষা করা হচ্ছে।